আল্লাহ তা'আলা মানুষকে ক্ষমতার বাইরে কাজের আদেশ দেন কি? - Askbangla.xyz
Askbangla তে আপনাকে সুস্বাগতম।এখানে আপনি প্রশ্ন করতে পারবেন এবং askbangla এর অন্যান্য সদস্যদের নিকট থেকে উত্তর পেতে পারবেন।বিস্তারিত জানতে এখানে ক্লিক করুন...
16 বার প্রদর্শিত
"ধর্ম ও নৈতিক শিক্ষা" বিভাগে করেছেন (172 পয়েন্ট)

এই প্রশ্নটির উত্তর দিতে দয়া করে প্রবেশ কিংবা নিবন্ধন করুন ।

1 উত্তর

0 টি ভোট
করেছেন (172 পয়েন্ট)
উত্তর ভূমিকা : মহান আল্লাহ তা'আলা দয়াময় ও মেহেরবান। তিনি মানুষ ও জিন জাতি সৃষ্টি করেছেন শুধমাত ইবাদত করার জন্য। তিনি আল-কুরআনের মাধ্যমে মানবজাতির জন্য পথ নির্দেশনা দিয়ে দিয়েছেন। যে নির্দেশনা পালন করা মানুষের জন্য সহজ সাধ্য।

বান্দার সক্ষমতার বাইরে তার ওপর আল্লাহ তাআলা ক্ষমতার বাইরে কাজের আদেশ দেন কি না : মহান আল্লাহ কাজের বােঝা চাপিয়ে দেন কি না এ নিয়ে কালামশাস্ত্রবিদ ও আহলে সুন্নাত ওয়াল জামাআতের মধ্যে মতভেদ রয়েছে।

আহলে সুন্নাত ওয়াল জামাআতের মত : আহলে সুন্নাত ওয়াল জামাআতের মতে, আল্লাহ তা'আলা কারও ওপর তার সামর্থ্যের বাইরে কাজ বা বােঝা চাপিয়ে দেন না। আল্লাহ তা'আলা মানবজাতিকে সৃষ্টি করেছেন। আর তিনিই ভালাে জানেন যে, কার সামর্থ্য বা সক্ষমতা কতটুকু। তিনি মানুষের ওপর সামর্থ্যের বাইরে কাজ চাপিয়ে দেন না। যার যতটুকু সক্ষমতা ততটুকুই তিনি প্রদান করেন।

তাদের দলিল: মহান আল্লাহ বলেন, ;১ 5 অর্থ : আল্লাহ তা'আলা কারও ওপর তার সামর্থ্যের অতিরিক্ত দায়িত্বের বােঝা চাপান না। (সুরা বাকারা : ২৮৬) অর্থাৎ আল্লাহর কাছে মানুষের সামর্থ্য অনুযায়ী তার দায়িত্ব বিবেচিত হয়। মানুষ কোনাে কাজ করার ক্ষমতা রাখে না অথচ আল্লাহ তাকে সে কাজটি না করার জন্য জিজ্ঞাসাবাদ করবেন, এমনটি কখনাে হবে না। অথবা প্রকৃতপক্ষে, কোনাে কাজ বা জিনিস থেকে দূরে থাকার সামর্থ্ই মানুষের ছিল না, সেক্ষেত্রে তাতে জড়িত হয়ে পড়ার জন্য আল্লাহ তাআলার কাছে নিজে জবাবদিহি করতে হবে না। কিন্তু এক্ষেত্রে মনে রাখতে হবে, নিজের শক্তি সামর্থ্য আছে কি না, এ সম্পর্কে মানুষ সিদ্ধান্ত গ্রহণ করতে পারে না। প্রকৃতপক্ষে মানুষের কিসের শক্তি সামর্থ্য ছিল আর কীসের ছিল না, এ সিদ্ধান্ত কেবল আল্লাহ তাআলাই গ্রহণ করতে পারবেন। অপর এক আয়াতে বলেছেন, অর্থ : আমি প্রত্যেক ব্যক্তির ওপর ত্তটুকু দায়িত্বের বােঝা দিহ যতটুকু তার সামর্থ্যের মধ্যে রয়েছে। (সুরা আনআম : ১৫২)

কালামশাস্ত্রবিদদের অভিমত : অনেক কালামশাস্ত্রবিদ ও মুসলিম দার্শনিক মনে করেন, আল্লাহ সাধ্যের বাইরে কাজ চাপিনে দেন এবং বান্দা তা করতে বাধ্যে করেন।

তাদের দলিল : মহান আল্লাহ আদমকে সৃষ্টি করার পর যাবতীয় নাম শিক্ষা দেন। কিন্তু ফেরেশতাদের তা শিক্ষা দেন তারপর আল্লাহ পাক ফেরেশতাদের ঐসব নাম বলতে বলেন। কিন্তু ফেরেশতারা বলতে অক্ষমতা প্রকাশ করে অতএব, বুঝা যায় মহান আল্লাহ মানুষকে সাধ্যের বাইরে কাজের আদেশ দেন।

উপসংহার : পরিশেষে বলা যায় যে, আল্লাহ তা'আলা তাঁর বান্দাকে সবসময়ই ভালােবাসেন। তিনি তাঁর বান্দাকে কখনই।কষ্ট দিতে চান না। আর তিনি তাঁর বান্দাদের ওপর অতিরিক্ত চাপ দেন না, যা বান্দা সহ্য করতে পারবে না।

সম্পর্কিত প্রশ্নগুচ্ছ

1 উত্তর 8 বার প্রদর্শিত
15 জুন "কম্পিউটার" বিভাগে জিজ্ঞাসা করেছেন অজ্ঞাতকুলশীল
0 টি উত্তর 9 বার প্রদর্শিত
1 উত্তর 11 বার প্রদর্শিত
06 সেপ্টেম্বর "সাধারণ জ্ঞান" বিভাগে জিজ্ঞাসা করেছেন অজ্ঞাতকুলশীল
0 টি উত্তর 15 বার প্রদর্শিত
1 উত্তর 4 বার প্রদর্শিত
1 উত্তর 8 বার প্রদর্শিত
18 সেপ্টেম্বর "সাধারণ জ্ঞান" বিভাগে জিজ্ঞাসা করেছেন অজ্ঞাতকুলশীল
1 উত্তর 8 বার প্রদর্শিত
16 সেপ্টেম্বর "ইসলাম ধর্ম" বিভাগে জিজ্ঞাসা করেছেন অজ্ঞাতকুলশীল

1,901 টি প্রশ্ন

1,522 টি উত্তর

5 টি মন্তব্য

69 জন সদস্য

Askbangla.xyz এ আপনাকে বিজিট করার জন্য সুস্বাগতম, এই সাইটে আপনি প্রশ্ন করতে পারবেন এবং অন্য সদস্যদের নিকট থেকে উত্তর পেতে পারবেন। তাই আদৃশ্য, অজানা বিষয় সম্পর্কে জান্তে নিয়মিত আমাদের সাইটে বিজিট করুন। আমরা সবসময় দেশ ও দেশের মানুষেকে ভালো কিছু উপহার দেয়ার জন্য সবসময় নিজেদের বিলিয়ে দেই। আমাদের লক্ষ ও উদ্দেশ্য হলো মানবসেবা করা, মানুষের কল্যাণে কাজ করা। ভাষায় সমস্যা সমাধানের একটি অনলাইন কমিউনিটি। এখানে আপনি প্রশ্ন করতে পারবেন এবং অন্যদের প্রশ্নে উত্তর প্রদান করতে পারবেন ৷ আর অনলাইনে বিভিন্ন সমস্যার সমাধানের জন্য উন্মুক্ত তথ্যভাণ্ডার গড়ে তোলার কাজে অবদান রাখতে পারবেন।
3 Online Users
0 Member 3 Guest
Today Visits : 974
Yesterday Visits : 3007
Total Visits : 116355
...